শুক্রবার , ২৫ নভেম্বর ২০২২ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. English News
  2. অর্থনীতি
  3. আইন-আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. কাতার বিশ্বকাপ
  6. কৃষি ও প্রকৃতি
  7. ক্যাম্পাস
  8. খুলনা
  9. খেলা
  10. চট্টগ্রাম
  11. চাকরি
  12. জাতীয়
  13. জীবনযাপন
  14. জোকস
  15. ঢাকা

আ.লীগই সরকারে থেকে প্রথম শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর করেছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৫, ২০২২ ১১:৩৬ অপরাহ্ণ
আ.লীগই সরকারে থেকে প্রথম শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর করেছে: প্রধানমন্ত্রী

বর্তমান সরকার ‘রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা’ ও ‘গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা চায়’ বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘২০০১ সালে আওয়ামী লীগ সরকারে থেকে যেবার শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর করেছে, সেবারই প্রথম দেশে শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘২০০৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে এবং এই তৃতীয়বারের মতো এখন সরকারে থেকে অন্তত এটুকু দাবি করতে পারে যে এই ১৪ বছরে বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে ও উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছে। আর আমাদের দেশের মানুষেরও অর্থনৈতিক উন্নতি হয়েছে।’

আজ শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) পঞ্চম জাতীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ সম্পর্কে জনগণকে বিভ্রান্ত করা লোকদের নিন্দা করে বলেন, দেশে পর্যাপ্ত রিজার্ভ আছে এবং রিজার্ভ জনসাধারণের কল্যাণে ব্যবহার করা হচ্ছে। তাঁর সরকার জনগণের কল্যাণে সম্ভাব্য সবকিছু করবে, কাউকে ভোগান্তি পোহাতে হবে না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা ঠিক, আমাদের রিজার্ভ থেকে (দেশবাসীর কল্যাণে) খরচ করতে হবে। আমাদের কাছে এত পরিমাণ রিজার্ভ মানি আছে যে আমরা পাঁচ মাসের জন্য খাদ্য আমদানি করতে পারি; যদিও যেকোনো দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে তিন মাসের খাদ্য আমদানির জন্য রিজার্ভ থাকতে হয়।’

চাল, গম, ভোজ্যতেল, জ্বালানি তেল, ভ্যাকসিন আমদানিসহ জনগণের কল্যাণে এ রিজার্ভ ব্যবহার করা হচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষ রিজার্ভের বিষয়ে বিশেষজ্ঞ হয়ে উঠছে এবং তারা চা-স্টল ছাড়াও বিভিন্ন জায়গায় রিজার্ভ নিয়ে আলোচনা করছে। কোভিড-১৯, ভর্তুকি দেওয়া, কিছু প্রকল্পে বিনিয়োগ ও বিদেশি ঋণ পরিশোধ করায় এ টাকা ব্যয় হয়েছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘খালেদা জিয়া যে রিজার্ভ রেখে গিয়েছিল, তা থেকে আওয়ামী লীগ ২০০৮–এ নির্বাচিত হয়ে ২০০৯ সালে যখন সরকার গঠন করে, তখন সেই রিজার্ভ ছিল পাঁচ বিলিয়নের কিছু ওপরে। করোনাকালে যেহেতু আমদানি বন্ধ ছিল, রেমিট্যান্স সরকারিভাবে এসেছে, কোনো হুন্ডি ব্যবসা ছিল না, কোনো রকম খরচ ছিল না, তাই আমাদের রিজার্ভ ৪৮ বিলিয়ন ডলারে উন্নীত হয়েছিল। তবে বাংলাদেশ তাদের সব ঋণ সব সময় সঠিকভাবে পরিশোধ করে এসেছে এবং একবারের জন্যও ঋণখেলাপি হয়নি।’

ভাষণে স্বাস্থ্য খাতের উন্নয়নে তাঁর সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথাও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। জাতির পিতার সেই অমোঘ মন্ত্র ‘বাংলাদেশের মানুষকে কেউ দাবায়ে রাখতে পারবা না’ উচ্চারণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষকে কেউ দাবিয়ে রাখতে পারবে না। কারণ, বাংলাদেশের মানুষ অত্যন্ত উৎসাহী। তাদের একটু সুযোগ দিলে তারা অসাধ্য সাধন করতে পারে।’

সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, স্বাচিপের সভাপতি এম ইকবাল আর্সলান ও মহাসচিব এম এ আজিজ বক্তৃতা করেন। মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক। জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে স্বাচিপের স্থায়ী কার্যালয়ের ফলক উন্মোচন করেন তিনি।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ডিবিনিউজ৭১.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন dbnews71.bd@gmail.com ঠিকানায়।

সর্বশেষ - রংপুর

আপনার জন্য নির্বাচিত