মঙ্গলবার , ১৮ অক্টোবর ২০২২ | ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. কাতার বিশ্বকাপ
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খুলনা
  8. খেলা
  9. চট্টগ্রাম
  10. চাকরি
  11. জাতীয়
  12. জীবনযাপন
  13. জোকস
  14. ঢাকা
  15. তথ্যপ্রযুক্তি

ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের একটি মানবিকতার গল্প

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ১৮, ২০২২ ১২:৪৬ অপরাহ্ণ
ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের একটি মানবিকতার গল্প

ঘটার সময় ৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ সন্ধ্যা বেলা। কর্মক্ষেত্র থেকে ফেরার পথে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় মারাত্মকভাবে মাথায় আঘাত প্রাপ্ত হন নেসকো (রংপুর প্রজেক্ট) এর উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনাব মো. তাহেনুর ইসলাম। তাৎক্ষণিকভাবে ভর্তি করা হয় রংপুর ডক্টর’স ক্লিনিকে। খবর পেয়ে আহত রোগীর কাছে ছুটে যায় নেসকোর উপ-সহকারী প্রকৌশলী বৃন্দ। সময় যতো গড়িয়ে যায় অবস্থার অবনতি হতে থাকে জনাব তাহেনুরের।

পর দিন ৭ সেপ্টেম্বরে ২০২২ আসে পাশের সকল দপ্তর থেকে ছুটে যান সহকর্মীরা। বেঁচে থাকার সম্ভবনা ক্ষীণ। মাথার হাড় ভেঙ্গে গিয়ে ব্যাপক রক্তক্ষরণ হয়েছে। সবাই হাল ছেড়ে দিলেও হাল ছাড়েনি রংপুর অঞ্চলের নেসকোর ডিপ্রকৌস নেতৃবৃন্দ। ত্রাতা হয়ে জীবনের সর্বস্ব দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েন প্রকৌশলীরা। সহকর্মীর অকাল প্রয়াণ মেনে নিতে চায়নি কেউ। সিদ্ধান্ত নেন হেলিকপ্টার যোগে তাৎক্ষণিকভাবে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাবেন। যেমন সিদ্ধান্ত তেমন কাজ নেসকোর সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা বৃন্দ ছুটে যান, সবাই বাড়িয়ে দেন সহযোগিতার হাত।

এয়ার এম্বুল্যান্স যোগে ঢাকায় নেয়ার ব্যয়, সেই সাথে রাস্তায় মারা যাবার চান্স ৭০% কোন কিছুই টলাতে পারেনি সহকর্মীদের। সিদ্ধান্ত জানানো হয় যার কছে যেমন আছে সব কিছু দিয়ে রোগীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসতে হবে। হাত খুলে সকল প্রকৌশলীরা পাশে দাঁড়ান তাহেনুর ভাইয়ের। এয়ার এম্বুল্যান্স যোগে নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকায়। রাতের পর রাত শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত অপারেশন থিয়েটার থেকে আইসিইউ সব খানে পাশে থাকে তাহেনুরের সহকর্মীরা।

উপ-সহকারী প্রকৌশলীরা নিজ উদ্যোগে মসজিদে মসজিদে দু’আর আয়োজন করেন। নিজের মোনাজাতে সর্বদা রেখেছেন তাহেনুর ভাইকে। প্রতি মুহূর্তে নেসকোর সকল প্রকৌশলী বৃন্দ ব্যাকুল হয়ে খোঁজ রেখেছেন অসুস্থ ভাইয়ের। মহান রবের অশেষ কৃপায় অপারেশন সাকসেসফুলি সম্পন্ন হয়। মৃত্যুর দুয়ার থেকে আল্লাহ তাহেনুর ভাইকে ফিরিয়ে দেন। ধন্যবাদ কৃতজ্ঞতা যা কিছুই জানানো হোক না কেন তবুও যেন রংপুর ডিপ্রকৌস নেতৃবৃন্দের জন্য তুচ্ছ হবে।

গতকাল তাহেনুর ভাইকে এয়ারলাইন্সে রংপুর ফিরিয়ে আনা হয়েছে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছে তার সহকর্মীরা। কখনো না দেখা আমিও মন থেকে চেয়েছিলাম ভাইটি যেন সুস্থ হয়ে ফিরে আসেন। নিজের ভাই-এর সুস্থতায় যেমন আনন্দিত হই ঠিক তেমনই অনুভূতি অনুভূত হয়েছে আমাদের।

তাহেনুর ভাই এর পাশে দাঁড়ানোর এই মানবিকতার গল্প সারাজীবন স্মৃতিতে থেকে যাবে। এই গল্পই হয়তো আরও শতশত বিপদগ্রস্ত উপ-সহকারী প্রকৌশলীর পাশে একযোগে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা যুগাবে। ভালো থাকুক ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা একই ভাবে যেন তাঁরা দেশের অসুস্থ রুগ্ন অবস্থায় সর্বদা ত্রাণকর্তা হিসেবে সেবা দিতে পারে।

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ডিবিনিউজ৭১.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন dbnews71.bd@gmail.com ঠিকানায়।

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস